ঢাকা ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম
শান্ত সীমান্ত পরিস্থিতি, টেকনাফ - সেন্টমার্টিন নৌপথে জাহাজ চলাচলের দাবি পটিয়ায় সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত পটিয়ায় শহীদের শ্রদ্ধা জানিয়েছেন এলডিপির নেতৃবৃন্দরা উখিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় রোহিঙ্গা শিশু নিহত উখিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় রোহিঙ্গা শিশু নিহত উখিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় রোহিঙ্গা শিশু নিহত কক্সবাজারে পর্যটকের ঢল: ভোগান্তি মহান একুশের শুভেচ্ছা মহান একুশে ফেব্রুয়ারির শুভেচ্ছা রাঙ্গুনিয়ায় বজলুর রহমান মহাজেরে মক্কী(রহঃ) বার্ষিক ইছালে ছাওয়াব মাহফিল ২১ ফেব্রুয়ারি

মিথ্যাচার করায় ভোট পাবে না বিএনপি: কাদের

#

৩০ ডিসেম্বর, ২০২২,  6:37 PM

news image

মিথ্যাচার করায় আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি মানুষের ভোট পাবে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন এবং সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর শ্যামলী হলের সামনে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ আয়োজিত সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিষোদগার, মিথ্যাচার ছাড়া বিএনপির আর কী আছে? মিথ্যাচারের জন্য মানুষ আর আপনাদের ভোট দেবে না। বিএনপিকে বাংলার মানুষ বিশ্বাস করে না।’ বিএনপির উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘বিএনপি সুস্থ রাজনীতি করে না, নষ্ট রাজনীতি করে। বিএনপি রাষ্ট্রকে ধ্বংস করেছে ও গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে হত্যা করেছে, অর্থ পাচার করেছে। আর এই ষড়যন্ত্রকারীরাই কি না রাষ্ট্র মেরামত করতে চায়? যারা নষ্ট রাজনীতি করে তারা রাষ্ট্র মেরামত করতে পারে না, রাষ্ট্রকে ধ্বংস করে। ফলে নির্বাচনে জনগণ বিএনপিকে লাল কার্ড দেখাবে।’তিনি বলেন, ‘ঢাকা আজ মিছিলের নগরী। সারা ঢাকায় আওয়ামী লীগ প্রস্তুত আছে। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে, ভোট চোরদের বিরুদ্ধে, বোমাবাজদের বিরুদ্ধে আমরা প্রস্তুত। বিএনপির বিরুদ্ধে আমরা প্রস্তুত। স্বাধীনতাবিরোধীদের রুখতে হবে।’


এ সময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার সময় বিবৃতি না দেওয়ায় বুদ্ধিজীবীদের সমালোচনা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।


তিনি বলেন, ‘আজ বিএনপি বুদ্ধিজীবীদের মাধ্যমে মির্জা ফখরুলের মুক্তি চায়, ভালো। ফখরুল তাদের বন্ধু। তাদের শুভাকাঙ্ক্ষী। তিনি অসুস্থ আমরা জানি না। বুদ্ধিজীবীরা বিবৃতি দিয়ে বলছেন তিনি নাকি অসুস্থ। এ বাংলাদেশে যখন ১৫ আগস্ট জাতির পিতাকে হত্যা করা হয়েছিল, তখন কী আপনারা বিবৃতি দিয়েছিলেন? বঙ্গবন্ধুকে হত্যার সময় আপনাদের মুখের ভাষা কোথায় ছিল? আমি জানতে চাই কোথায় ছিল প্রতিবাদ, জাতীয় চার নেতাকে জেলখানায় হত্যা করা হলো, কোথায় ছিল আপনাদের প্রতিবাদ। আহসানউল্লাহ মাস্টারকে যখন প্রকাশ্যে হত্যা করা তখন কী প্রতিবাদ করেছিলেন?’


সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, এসএম কামাল হোসেন, স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এসএম মান্নান কচি প্রমুখ।

logo

সম্পাদক : হেফাজুল করিম রকিব

নির্বাহী সম্পাদক : শাহ এম রহমান বেলাল