ঢাকা ৩০ মে, ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম
সমস্যা এক কিডনিতে, ডাক্তার কাটলেন অন্যটা লঙ্কানদের হারিয়ে টাইগারদের ‘হুমকি’ দিয়ে রাখল নেদারল্যান্ডস টাইটানের মতো এবার সাগরের তলদেশে যেতে চান মার্কিন ধনকুবের ৩০ কোটি টাকার ঝামেলা মিটল বিনা পয়সায় ১ জুলাই থেকে আবারও বাড়ছে পানির দাম পারমাণবিক অস্ত্র তৈরির দ্বারপ্রান্তে ইরান ঢাকাদক্ষিণ উন্নয়ন সংস্থা ইউকের দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভা ও নির্বাচন অনুষ্ঠিত রাফায় আশ্রয়শিবিরে ভয়াবহ হামলাকে ‘দুর্ঘটনা’ বললেন নেতানিয়াহু সিনেমাই তার ধ্যান-জ্ঞান মুম্বাই বিমানবন্দর ও তাজ হোটেল উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি

গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে যুক্তরাজ্যে গ্রেপ্তার ৩, ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া চীনের

#

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৫ মে, ২০২৪,  5:09 PM

news image
ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাজ্যে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে হংকং বংশোভূত তিন ব্রিটিশ নাগারিককে গ্রেপ্তারের ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে চীন। লন্ডনে চীন দূতাবাস বলেছে, গ্রেপ্তার তিনজনকে অযৌক্তিক অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেপ্তার করেছে যুক্তরাজ্য। তারা এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। খবর টেলিগ্রাফের।

গ্রেপ্তার তিনজন হলেন- চি লেউং ওয়াই, ম্যাথিউ ট্রিকেট এবং চুং বিউ ইউয়েন। তারা হংকংয়ের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি করছিলেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে। গ্রেপ্তারের পর সোমবার তাদের ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সংক্ষিপ্ত শুনানিতে হাজির করা হয়েছিল। আদালত তাদের শর্তসাপেক্ষে জামিন দেন। জেলা বিচারক লুইসা সিসিওরা বলেন, তাদের অবশ্যই রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত কারফিউ মেনে চলতে হবে, পুলিশকে সাপ্তাহিক রিপোর্ট করতে হবে, বিদেশে ভ্রমণ করতে পারবে না এবং তারা যে ডিভাইসগুলোতে ইন্টারনেট ব্যবহার করে সেগুলো সম্পর্কে পুলিশকে জানাতে হবে।

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে চীন। চীনের লন্ডন দূতাবাস বলেছে, ‘আমরা হংকংয়ের বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চল সরকারের বিরুদ্ধে যুক্তরাজ্যের অযৌক্তিক অভিযোগের তীব্র নিন্দা জানাই।’

গ্রেপ্তার হওয়ার ব্যক্তিদের চি লেউং ওয়াই যুক্তরাজ্যের বর্ডার ফোর্সের হয়ে জার্মানির হিথ্রো বিমানবন্দরে কাজ করেন, যিনি সারির স্টেইনসে থাকেন। তিনি একাধারে যুক্তরাজ্য ও হংকংয়ের নাগরিক। তিনি ডি ৫ নামে একটি নিরাপত্তা সংস্থাও চালান। সংস্থার ওয়েবসাইটে উল্লেখ রয়েছে, ওয়াই এর ব্রিটিশ সামরিক, পুলিশ এবং ব্যক্তিগত নিরাপত্তা সেক্টরে ২০ বছরের বেশি কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে। এ জন্য তিনি গর্বিত। নিজের ফেসবুক পেজে ওয়াই উল্লেখ করেছেন, শিক্ষা জীবন শেষে তিনি যুক্তরাজ্যের নৌবাহিনীতে যোগ দেন। তিনি আফগানিস্তান, ইরাক ও লিবিয়াতে বাহিনীর হয়ে দায়িত্ব পালন করেছেন।

শুধু তাই নয়, ওয়াই লন্ডন পুলিশের একজন ‘স্বেচ্ছাসেবক বিশেষ কনস্টেবল’। হংকং গোয়েন্দা বাহিনীর হয়ে নজরদারির অভিযোগে তাকে  গ্রেপ্তার করা হয় বলে যুক্তরাজ্যের পক্ষে দাবি করা হয়েছে। 

দ্বিতীয়জন ট্রিকেট স্বরাষ্ট্র দপ্তরের একজন অভিবাসন প্রয়োগকারী কর্মকর্তা, যিনি যুক্তরাজ্য নৌবাহিনীর কমান্ডো হিসাবে ছয় বছর (২০০৭-১৩ সাল) দায়িত্ব পালন করেন। তিনি চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে স্বরাষ্ট্র দপ্তরের ইমিগ্রেশন এনফোর্সমেন্টে যোগদান করেন। এর আগে তিনি হিথ্রোতে যুক্তরাজ্যের বর্ডার ফোর্সে নিযুক্ত ছিলেন। এছাড়াও তিনি এমটিআর কনসালটেন্সির একমাত্র পরিচালক, যেটি তিনি ২০২১ সালে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন এবং নিজেকে একজন নিরাপত্তা পরামর্শদাতা হিসেবে বর্ণনা করেছেন। 

অভিযুক্ত তৃতীয়জন ইউয়েন একজন অবসরপ্রাপ্ত হংকং পুলিশ কর্মকর্তা, যিনি লন্ডনে অবস্থিত হংকং বাণিজ্য কর্মকর্তা হিসাবে নিযুক্ত।

তাদের বিরুদ্ধে প্রধানত দুটো অভিযোগ আনা হয়েছে। এর মধ্যে পয়লা মে ওয়েস্ট ইয়র্কশায়ারের পন্টেফ্র্যাক্টে বসবাসকারী হংকংয়ের ভিন্নমতাবলম্বী ব্যক্তির বাড়িতে প্রবেশের চেষ্টা করেন তারা। দ্বিতীয়তো হলো- গত বছরের ২০ ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের ২ মে এর মধ্যে বিদেশি গোয়েন্দা সংস্থার হয়ে তথ্য সংগ্রহ ও নজরদারি চালিয়েছিলেন তারা।

তিন অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের পর যুক্তরাজ্যের নাগরিকদের জন্য হুমকি ও হয়রানি সহ্য করা হবে না জানিয়ে দেশটির নিরাপত্তাবিষয়ক মন্ত্রী টম টুগেনধাত বলেন, দেশের স্বাধীনতা রক্ষা আমাদের প্রধান অঙ্গীকার। আমরা ব্রিটিশ জনগণ এবং আমাদের জাতীয় নিরাপত্তাকে সব সময় প্রথমেই রাখব।

এদিকে মঙ্গলবার অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে বিস্তারিত তথ্যের আহ্বান জানিয়েছেন হংকং নেতা জন লি।

গ্রেপ্তার ইউয়েন তার একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের সহপাঠী ছিলেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, হংকং সরকারের বিরুদ্ধে যুক্তরাজ্যের তথাকথিত মামলা বানোয়াট এবং এর অযৌক্তিক। তিনি এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেন।

logo

সম্পাদক : হেফাজুল করিম রকিব

নির্বাহী সম্পাদক : শাহ এম রহমান বেলাল