ঢাকা ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম
শান্ত সীমান্ত পরিস্থিতি, টেকনাফ - সেন্টমার্টিন নৌপথে জাহাজ চলাচলের দাবি পটিয়ায় সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত পটিয়ায় শহীদের শ্রদ্ধা জানিয়েছেন এলডিপির নেতৃবৃন্দরা উখিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় রোহিঙ্গা শিশু নিহত উখিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় রোহিঙ্গা শিশু নিহত উখিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় রোহিঙ্গা শিশু নিহত কক্সবাজারে পর্যটকের ঢল: ভোগান্তি মহান একুশের শুভেচ্ছা মহান একুশে ফেব্রুয়ারির শুভেচ্ছা রাঙ্গুনিয়ায় বজলুর রহমান মহাজেরে মক্কী(রহঃ) বার্ষিক ইছালে ছাওয়াব মাহফিল ২১ ফেব্রুয়ারি

স্বর্ণের দাম কেন বাড়ে-কমে

#

২১ ডিসেম্বর, ২০২১,  6:50 PM

news image

দেশে কিছুদিন পরপরই স্বর্ণের দাম বাড়ে, আবার কখনো কমে। পেছনের এক বছরে এ দাম বাড়ানো-কমানো হয়েছে ১১ বার। এর নেপথ্যে আন্তর্জাতিক বাজারে দাম ওঠা-নামা ছাড়াও বেশকিছু কারণ রয়েছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

তারা বলছেন, আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের দাম ওঠা-নামা ছাড়াও ডলারের দাম কম-বেশি, চাহিদা বিপরীতে যোগান কম-বেশি থাকলে, উৎসব আমেজের আগে-পরে দাম বাড়ানো-কমানো হয়। এছাড়া পন্যটি আলোচনায় রাখতেও অনেক সময় এটি করা হয়। দাম নির্ধারণের বিষয়ে সব সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। বিষয়ে জানতে বাজুসের সাধারণ সম্পাদক ও ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দিলীপ কুমার আগারওয়ালার মুঠোফোনে কল ও ক্ষুদে বার্তার মাধ্যমে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও পাওয়া যায়নি।

রাজধানীর বায়তুল মোকাররমের স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা জানান, দাম বাড়া বা কমা প্রথমত আন্তর্জাতিক বাজারের ওপর নির্ভর করে। যদি আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমে বা বাড়ে তাহলে দেশে ব্যবসায়ীরা তা কয়েকদিন পর্যবেক্ষণ করেন। এক পর্যায়ে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি বৈঠকের মাধ্যমে দাম নতুন করে নির্ধারণের সিদ্ধান্ত নেয়। এছাড়া ডলারের দামের সঙ্গেও স্বর্ণের দাম ওঠা-নামা করে। বিশ্ব বাজারে ডলারের দাম অনেক সময় বাড়তি থাকলে স্বর্ণের দাম নিম্নমুখী হয়। আবার এমনও দেখা যায়, ডলার নিম্নমুখী হলে স্বর্ণের দাম হয় ঊর্ধ্বমুখী। এমনকি দেশে বিয়েসহ বিভিন্ন উৎসবের আগে চাহিদা বেড়ে যায়, তখন দাম বাড়ে।

 দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে জুয়েলারি ব্যবসার সঙ্গে জড়িত দীপ জুয়েলার্সের মঞ্জুর রহমান। তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, বেশকিছু কারণে দাম বাড়ে বা কমে। আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের দাম নিম্নমুখী থাকায় সম্প্রতি দেশে দাম কমানো হয়েছে। তবে দেশে স্বর্ণ পরিশোধনের কারখানা হচ্ছে। এটি পুরোপুরি চালু হলে দাম আরও কমবে।

পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ২০২১ সালের শুরু থেকে এ পর্যন্ত স্বর্ণের দাম ১১ বার বাড়ানো-কমানো হয়েছে। এর মধ্যে ৫ বার কমানো এবং ৬ বার বাড়ানো হয়েছে। বাজুসের নির্ধারণ করা দাম অনুযায়ী, চলতি বছরের ৫ জানুয়ারি ২২ ক্যারেট মানের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ছিল ৭৪ হাজার ৬৫০ টাকা (প্রতিগ্রাম ৬ হাজার ৪০০ টাকা)। এর মধ্যে আরও ১০ বার দাম পরিবর্তন করে গত সপ্তাহে তা নির্ধারণ করা হয়েছে। সর্বশেষ দাম অনুযায়ী, ২২ ক্যারেট মানের প্রতি ভরি স্বর্ণ ৭৩ হাজার ১৩৩ টাকা (প্রতি গ্রাম ৬ হাজার ২৭০ টাকা) বিক্রি হচ্ছে। বছরব্যাপী হ্রাস-বৃদ্ধির পর প্রতি ভরিতে স্বর্ণের দাম কমেছে মাত্র ১ হাজার ৫১৭ টাকা (প্রতি গ্রামে দাম কমেছে ১৩০ টাকা)। রাইজিং বিডি


logo

সম্পাদক : হেফাজুল করিম রকিব

নির্বাহী সম্পাদক : শাহ এম রহমান বেলাল